বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের একটি এলাকা। ছবি: সংগৃহীত

স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যা দেখছে নিউজিল্যান্ডবাসী।

দেশটির সাউথ আইল্যান্ডে বৃহস্পতিবার ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ স্থানে চলে গেছে কয়েক শ পরিবার। খবর বাসসের।

বন্যার কারণে তিনটি অঞ্চলে জরুরি অবস্থা ঘোষণার পর তারা চলে যায়।

গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ঝড়ের প্রভাবে এ দ্বীপের বিভিন্ন এলাকায় ৩০ সেন্টিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এর ফলে অনেক নদীর তীর ভেঙে যাওয়ায় ব্যাপক বন্যা দেখা দিয়েছে। এমন দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় বহু গাছপালা উপড়ে পড়েছে এবং রাস্তাঘাট পানিতে তলিয়ে গেছে।

নিউজিল্যান্ডের পশ্চিম উপকূলীয় বুলারে এবং নেলসনে বুধবার জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়। সেখানে মাত্র ১৫ ঘণ্টায় এক মাসের সমান বৃষ্টিপাত হওয়ায় ২৩৩ পরিবারকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়।

নগরীর মেয়র রাশেল রিজ সেখানের এমন আকস্মিক বন্যাকে বিগত ১০০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ হিসেবে অভিহিত করেন। এদিকে সেনাসদস্যসহ অনুসন্ধান ও উদ্ধার দল বন্যায় তলিয়ে যাওয়া বিভিন্ন রাস্তায় সহায়তা করছেন।

বন্যার কারণে নর্দমার কিছু লাইন ভেঙে যাওয়ায় পানি দূষিত হয়ে পড়েছে বলে তিনি স্থানীয় বাসিন্দাদের সতর্ক করে দেন।

নেলসনের বাসিন্দা স্যাম লগ্রুতা জানান, পরিস্থিতি এতই ‘ভীতিকর’ ছিল যে, পুলিশ তাঁকে মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যে বাসা ছাড়তে বলে।

সাউথ আইল্যান্ডের পশ্চিম উপকূল বরাবর বসবাস করা আরও ১৬০ পরিবারকে সরিয়ে নেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে