লিভারপুলকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে নিজেদের ১৪তম শিরোপা জয় করে রিয়াল। দুই দলের মধ্যে পার্থক্য গড়ে দেয় রিয়ালের ব্রাজিলিয়ান তারকা ভিনিসিয়াস জুনিয়রের গোল।

২৮ মে রাতে ম্যাচ শুরুর আগে দর্শকদের সঙ্গে স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গন্ডগোলের কারণে কিক-অফ পিছিয়ে দেওয়া হয়। দুই দলের সমর্থকেরা ফাইনাল দেখার জন্য প্যারিসে পৌঁছালেও অনেকে বিনা টিকিটে মাঠে প্রবেশের চেষ্টা করেন। ফলে, তাঁদের সামলাতে কিছুটা বেগ পেতে হয় পুলিশকে। রাত ১টার বদলে দেড়টায় শুরু হয় ফাইনাল। ম্যাচ শুরুর আগে কিউবান পপস্টার কামিলা কাবেও স্টেডিয়াম মাতান তাঁর পরিবেশনা দিয়ে।

তবে, শুরুর আগের উত্তেজনার ছিটেফোঁটাও দেখা যায়নি ম্যাচ শুরুর পর। শুরু থেকেই রক্ষণাত্মক ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের প্রথম ৩০ মিনিট কোনো আক্রমণ করেনি তারা। লিভারপুলও বার দুয়েক চড়াও হলেও রিয়াল গোলকিপার থিবো কোঁতোয়ার প্রচেষ্টায় গোলের দেখা পায়নি। মোহামেদ সালাহ ও সাদিও মানেকে বঞ্চিত রাখেন এ বেলজিয়ান শটস্টপার।

বিরতির ঠিক আগে কারিম বেনজেমার গোল বাতিল হয়ে যায়। ৪৩ মিনিটে এ ফরাসি তারকা বল জালে জড়ালেও ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্টের সাহায্য নিয়ে রেফারি অফসাইডের কারণে গোল বাতিল করেন। দুই দলের প্রথমার্ধ শেষ হয় গোল ছাড়াই।

বিরতির পর স্টেডিয়ামে উপস্থিত হাজার পঞ্চাশেক দর্শককে উত্তেজনার স্বাদ দেন ভিনিসিয়াস। এ ব্রাজিলিয়ানের গোলে ৫৯ মিনিটে লিড নেয় রিয়াল মাদ্রিদ। শেষ ৩০ মিনিট তেমন কোনো নাটকীয়তা ছিল না। বারবার আক্রমণ করেও রিয়ালের রক্ষণে ফাটল ধরাতে পারেনি ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা। সব আক্রমণ মোটামুটি একা হাতে রুখে দিয়েছেন কোঁতোয়া। শেষ পর্যন্ত ওই এক গোলে ম্যাচে টুর্নামেন্ট জিতে নেয় রিয়াল মাদ্রিদ।

অন্যদিকে, ফাইনাল হারায় এক মৌসুমে তিন শিরোপা জেতা হলো না লিভারপুলের। গত সপ্তাহে পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটির কাছে লিগ শিরোপা খোয়ানো লিভারপুলকে সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে লিগ কাপ ও এফএ কাপের জোড়া শিরোপা জিতেই।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে