রাজশাহী মহানগরের রানীনগর এলাকায় পিয়ারুল ইসলাম পিরুকে (৩৪) হত্যার ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে গতকাল শনিবার দিবাগত রাতে গ্রেপ্তার করেছে বোয়ালিয়া মডেল থানা-পুলিশ। এ সময় আসামির কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত চাকু উদ্ধার করা হয়। খবর আরএমপি নিউজের।

গ্রেপ্তার আসামি হলেন রাজশাহী মহানগরের বোয়ালিয়া মডেল থানার রানীনগর দক্ষিণ সাধুর মোড়ের মো. আমিরুল কসাইয়ের ছেলে মো. হাসান আলী জয় (২৭)। তিনি এলাকায় ছিনতাইকারী হিসেবে পরিচিত। রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় তাঁর বিরুদ্ধে ১০টি মামলা রয়েছে।

পুলিশ সূত্র জানায়, গতকাল রাত আড়াইটায় বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নিবারণ চন্দ্র বর্মন পিপিএম-এর নেতৃত্বে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই উত্তম কুমার রায় ও তাঁর টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রানীনগর দক্ষিণ সাধুর মোড়ে পরিত্যক্ত একটি বাড়ি থেকে আসামি হাসান আলী জয়কে গ্রেপ্তার করে।

৬ নভেম্বর রাতে পিয়ারুল ইসলাম পিরুর সঙ্গে আসামি হাসান আলীর তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কথা-কাটাকাটি হয়। এই ঘটনার জের ধরে হাসান আলীসহ কয়েকজন মিলে ধারালো চাকু, লোহার রড, জিআই পাইপ, বাঁশের লাঠি নিয়ে এসে পিরুর বাড়িতে ঢুকে তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে। এ ঘটনায় পরদিন বোয়ালিয়া মডেল থানা-পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে আসামি মো. শিমুল ও সোহানুর রহমান সোহানকে গ্রেপ্তার করে।

আসামির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে