সুনামগঞ্জের ধরমপাশা উপজেলায় বাদেহরিপুর গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে আজ রোববার সকালে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ৭ জন আহত হয়েছেন। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করেছে পুলিশ।

গুরুতর আহত চারজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্য তিনজনকে ভর্তি করা হয়েছে ধরমপাশা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।
প্রাথমিকভাবে জানা যায়, বাদেহরিপুর গ্রামে জমি নিয়ে আবুল কাউছারের (৩৫) সঙ্গে প্রতিবেশী কামাল মিয়ার (৪০) জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। এ বিরোধ নিয়ে দেওয়ানি আদালতে একাধিক মামলাও চলছে। এই বিরোধের জের ধরে আজ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দুই পক্ষের মধ্যে তর্কাতর্কি শুরু হয়। তা একপর্যায়ে হাতাহাতি ও মারামারিতে রূপ নেয়। এতে কাউছার পক্ষের আয়নাল হক, আজিজুল হক, প্রীতি আক্তার ও রোকসানা আক্তার গুরুতর আহত হন। আর কামাল মিয়া পক্ষের কামাল মিয়া নিজে ছাড়াও তাঁর ভাই তামজিদ মিয়া (৩০), ছেলে জিহাদ মিয়া (২০) আহত হন। কামালের পক্ষের আহতদের ধরমপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আর কাউছারের পক্ষের আহত চারজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে