তাইওয়ানের চারপাশ ঘিরে তাইওয়ান প্রণালিতে চীন যে সামরিক মহড়া শুরু করেছে, তা দ্রুত বন্ধ করতে বেইজিংয়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাপান।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ডেমোক্র্যাট নেতা ন্যান্সি পেলোসির সফরের প্রতিক্রিয়ায় তাইওয়ানের চারপাশে সামরিক মহড়া শুরু করেছে চীন। গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া এই মহড়ায় সত্যিকারের গোলাবারুদ ব্যবহার হচ্ছে। মহড়া শুরুর দিনই তাইওয়ান অভিমুখে অন্তত ১১টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে চীনা সামরিক বাহিনী, যা তাইওয়ানের কাছে সাগরে গিয়ে পড়েছে। এমনকি চীনের ২২টি যুদ্ধজাহাজ এদিন অল্প সময়ের জন্য তাইওয়ানের আকাশ প্রতিরক্ষা সীমার মধ্যে ঢুকে পড়েছিল বলে তাইপে দাবি করেছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা ৫ আগস্ট (শুক্রবার) বলেন, এ ধরনের মহড়া জাপানের জাতীয় নিরাপত্তা ও নাগরিকদের সুরক্ষার ওপর হুমকি।

টোকিও জানিয়েছে, ‍চীনের পাঁচটি ক্ষেপণাস্ত্র দৃশ্যত জাপানের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে পড়েছে। এর মধ্যে চারটি তাইওয়ানের ওপর দিয়ে এসেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বার্তা সংস্থা এএফপির বরাত দিয়ে ফ্রান্স টোয়েন্টিফোর ডটকম জানায়, জাপান সফররত ন্যান্সি পেলোসির সঙ্গে সকালের নাশতা সেরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী কিশিদা। তিনি বলেন, ‘আমি তাঁকে (পেলোসি) বলেছি যে আমরা (চীনের) সামরিক মহড়া দ্রুত বন্ধের আহ্বান জানিয়েছি।’ কিশিদা জানান, তিনি ও পেলোসি ভূরাজনৈতিক বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেছেন, যেগুলোর মধ্যে রয়েছে উত্তর কোরিয়া, চীন ও রাশিয়া পরিস্থিতি। দুই নেতা পরমাণু অস্ত্রমুক্ত বিশ্ব গড়া নিয়েও কথা বলেছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে