বাবা-মা ও মেয়ের মরদেহ। ছবি : সংগৃহীত

খুলনার কয়রা উপজেলায় একই পরিবারের তিনজনকে হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ চারজনকে আটক করেছে। খবর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের।

কয়রা থানার ওসি রবিউল হোসেন মামলার খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, নিহত রাজমিস্ত্রি হাবিবুল্লাহ গাজীর মা কোহিনূর খানম বাদী হয়ে গতকাল মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) রাতে কয়রা থানায় মামলাটি করেন। মামলায় অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করা হয়েছে।

এর আগে সোমবার (২৫ অক্টোবর) রাতে কয়রা উপজেলার বাগালী ইউনিয়নের বামিয়া গ্রামে বাবা-মা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা করে লাশ পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়। মঙ্গলবার সকালে পুলিশ তাঁদের লাশ উদ্ধার করে।

ওসি বলেন, সন্দেহভাজন হিসেবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক নারীসহ মোট চারজনকে তাঁরা আটক করেছেন। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, রাজমিস্ত্রির ওই পরিবারে লুট করার মতো তেমন কোনো মালপত্র নেই। ধর্ষণের পর এ হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে কি না, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এ ছাড়া খুনিকে গ্রেপ্তারে এলাকায় অভিযান চালানো হচ্ছে।

কয়রা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহাদাত হোসেন বলেন, নিহত তিনজনের মাথায় ও মুখে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। প্রাথমিকভাবে একে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করা হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে