নিজেদের তৈরি করোনাভাইরাসের টিকার বুস্টার ডোজ ৯৫ দশমিক ৬ শতাংশ কার্যকর বলে দাবি করেছে ফাইজার-বায়োএনটেক। গতকাল বৃহস্পতিবার এ টিকা প্রস্তুতকারকদের প্রকাশিত ট্রায়ালের উপাত্ত থেকে এ তথ্য জানা যায়।
আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপির বরাত দিয়ে বাসসের খবরে বলা হয়, এক বিবৃতিতে ফাইজার-বায়োএনটেক জানায়, ১৬ বছর এবং এর বেশি বয়সের ১০ হাজার অংশগ্রহণকারীর ওপর চালানো তৃতীয় ধাপের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ৯৫ দশমিক ৬ শতাংশ কার্যকর হতে দেখা যায়। প্রাণঘাতী ডেলটা ধরন ছড়িয়ে পড়ার সময় এ ট্রায়াল চালানো হয়।

এ গবেষণা প্রতিবেদনে বুস্টার ট্রায়ালের প্রাথমিক ফলাফল উপস্থাপন করার মধ্য দিয়ে ভ্যাকসিনের তৃতীয় ডোজের একটি ‘অনুকূল নিরাপত্তা ধারণা চিত্র’ পাওয়া গেল।

ফাইজারের সিইও আলবার্ট বৌর্লা বলেন, ‘এ ফলাফল বুস্টার সুবিধার আরও প্রমাণ এবং এ ক্ষেত্রে আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে, এ ভাইরাসের বিরুদ্ধে মানুষের ভালো সুরক্ষা ব্যবস্থা ধরে রাখা।’

ওই বিবৃতিতে জানানো হয়, এ প্রাথমিক ফলাফল ‘যত দ্রুত সম্ভব’ নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর সঙ্গে শেয়ার করা হবে।

ইতিমধ্যে টিকা গ্রহণ করেছেন এমন মানুষের মধ্যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ করোনার টিকার বুস্টার ডোজ গ্রহণের অনুমোদন দিয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে