গ্রেপ্তার সৈকত মন্ডল ও তাঁর সহযোগী রবিউল ইসলাম। ছবি : সংগৃহীত

রংপুরের পীরগঞ্জের সাম্প্রদায়িক হামলার উসকানিদাতা ও হামলায় সরাসরি অংশ নিয়েছিলেন গ্রেপ্তার হওয়া সৈকত মন্ডল। এ ছাড়া সৈকতের নির্দেশেই মাইকিংয়ের মাধ্যমে লোক জড়ো করেছিলেন মসজিদের মোয়াজ্জেম রবিউল।

আজ শনিবার (২৩ অক্টোবর) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র্যা ব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র্যা বের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।খবর বাংলানিউজ টোয়েন্টিফোরের।

এর আগে, গতকাল শুক্রবার (২২ অক্টোবর) রাতে টঙ্গী এলাকা থেকে সৈকত মন্ডল (২৪) ও তাঁর সহযোগী রবিউল ইসলামকে (৩৬) গ্রেপ্তার করে র্যা ব-১৩।

কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, সৈকত রংপুরের একটি ডিগ্রি কলেজের স্নাতকের শিক্ষার্থী। তিনি একটি ফেসবুক পেজের অ্যাডমিন। ওই পেজে তাঁর ৩ হাজার ফলোয়ার রয়েছে। সে প্রথমে ওই পেইজে ধর্মীয় উসকানিমূলক পোস্ট দিয়ে ও মাইকিংয়ের মাধ্যমে লোক জড়ো করে হামলা ও অগ্নিসংযোগ করে। সৈকত নিজেকে একটি অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার জন্য ফেসবুকে ধর্মীয়, সরকার ও রাষ্ট্র বিরোধী বিভিন্ন উসকানিমূলক পোস্ট দিতেন।

তিনি বলেন, সৈকত প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে এসব তিনি ইচ্ছাকৃতভাবেই করেছেন। তাঁর নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন হামলায় সরাসরি অংশ নিয়ে বাড়িঘর, দোকানপাট ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করে। গ্রেপ্তার হওয়া রবিউল ঘটনাস্থলের পাশে একটি মসজিদের মোয়াজ্জেন ছিলেন। সৈকতের নির্দেশেই রবিউল মাইকিং করে লোকজন জড়ো করেছিল। এরপর উঁচু একটি স্থানে দাঁড়িয়ে সৈকত হামলা ও অগ্নিসংযোগের জন্য সবাইকে নির্দেশনা দেয়। ঘটনার পরপর সৈকত ও রবিউল দুজনই আত্মগোপনে চলে যান।

ইতিপূর্বে গ্রেপ্তার হওয়া আসামি উজ্জলের প্রসঙ্গে খন্দকার আল মাঈন বলেন, উজ্জল ছিল সৈকতের ফেসবুক ফ্রেন্ড। পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া উজ্জল ও পরিতশের নিজস্ব দ্বন্দ্বের মাধ্যমেই হামলাটি শুরু হয়। উস্কানিমূলক স্ট্যাটাসে একে অপরের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন। সৈকত এর আগেও ফেসবুকে বিভিন্ন ধর্মীয় উসকানিমূলক পোস্ট দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৭ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ধর্মীয় অবমাননাকর পোস্টকে কেন্দ্র করে রংপুরের পীরগঞ্জের বগ করিমপুর গ্রামে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার উদ্দেশ্যে বেশ কয়েকটি বাড়িঘর, দোকানপাট ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় পীরগঞ্জ থানায় তিনটি মামলা দায়েরের পরিপ্রেক্ষিতে উজ্জল ও পরিতশসহ বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে র্যা ব-১৩।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে