খাদ্যশস্যবাহী আরও তিন জাহাজের আজ ৫ আগস্ট (শুক্রবার) ইউক্রেন ছাড়ার কথা রয়েছে। এর আগে ১ আগস্ট (সোমবার) শস্যবোঝাই ১৬টি জাহাজ দেশটির ওডেসা বন্দর ছেড়ে যায়।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, জাতিসংঘ ও তুরস্কের মধ্যস্থতায় রাশিয়ার সঙ্গে ইউক্রেনের চুক্তির পর কৃষ্ণসাগর দিয়ে খাদ্যশস্য রপ্তানি শুরু করে কিয়েভ।

তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকার ৪ আগস্ট (বৃহস্পতিবার)বলেন, ‘৫ আগস্ট (শুক্রবার) এই তিনটি জাহাজ ইউক্রেন থেকে যাত্রা করবে। প্রথম জাহাজটি ২৬ হাজার টন ভুট্টা নিয়ে তুরস্কের ইস্তানবুল হয়ে লেবানন যাবে।’

সিয়েরালিয়নের পতাকাবাহী রাজনি নামের জাহাজটি বসফরাস প্রণালি পাড়ি দেওয়ার সময় ১০ আগস্ট (বুধবার) ইউক্রেন ও রাশিয়ার পরিদর্শক দল এটিকে পর্যবেক্ষণ করবে। জাহাজের যাত্রার পুরো পথ আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক দল, তুরস্ক ও জাতিসংঘের সদস্যরা নজরদারিতে রাখবেন। পর্যবেক্ষক দল জানিয়েছে, এই জাহাজের সফল ও নিরাপদ যাত্রাই বলে দেবে যুদ্ধরত দুই পক্ষ তাদের মধ্যকার চুক্তির বিষয়ে কতটা শ্রদ্ধাশীল।

তুরস্ক জানিয়েছে, চুক্তির যথাযথ কার্যকারিতাই পরে যুদ্ধবিরতির বিষয়ে ঐকমত্যে পৌঁছাতে দুই দেশের প্রতিনিধিদের সহায়তা করবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে